চটেছেন এমবাপ্পে

image-564614-1655788946.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : গত ইউরোতে ফ্রান্সের ভরাডুবির দায় তার কাঁধে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছিল। বাজে পারফরম্যান্সের কারণে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। সেই কঠিন সময়ে ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন তাকে আগলে রাখতে যথেষ্ট করেনি। তাই রাগে-দুঃখে-অভিমানে জাতীয় দল থেকে অবসর নিতে চেয়েছিলেন পিএসজি তারকা। রোববার এক সাক্ষাৎকারে ফ্রান্সের ফুটবল প্রধান নোয়েল লো গ্রায়েতের এমন মন্তব্যে বেজায় চটেছেন এমবাপ্পে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কড়া জবাব দিয়ে বলেছেন, সব মিথ্যা। এমবাপ্পের দাবি, সমালোচনা নয় বরং বর্ণবাদের শিকার হওয়ার দরুন তিনি ইতি টানতে চেয়েছিলেন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের।

২০২০ ইউরো দুঃস্বপ্নের মতো কেটেছে এমবাপ্পের। পুরো টুর্নামেন্টে কোনো গোল করতে পারেননি তিনি। সুইজারল্যান্ডের কাছে টাইব্রেকারে হেরে শেষ ষোলো থেকে ছিটকে যায় ফ্রান্স। টাইব্রেকারে দলের শেষ শট মিস করে এমবাপ্পে হয়ে যান খলনায়ক। ফ্রান্সের ফেডারেশন সভাপতির ভাষ্য, পেনাল্টি ব্যর্থতার পর তাকে আগলে রাখা হয়নি বলেই জাতীয় দল ছাড়তে চেয়েছিলেন এমবাপ্পে।

আরও পড়ুন : প্রতি বছর কোটি টাকা ব্যয় করেও রোধ হচ্ছে না পদ্মার ভাঙন

লো গ্রায়েতের এমন মন্তব্যের জবাবে টুইটারে ফরাসি ফরোয়ার্ড লিখেছেন, সভাপতি যা বলেছেন তা সত্য নয়, ‘আমি তাকে স্পষ্টভাবে ব্যাখ্যা করেছিলাম যে বিষয়টি বর্ণবাদের সঙ্গে সম্পর্কিত এবং পেনাল্টিবিষয়ক নয়। কিন্তু বর্ণবাদের কোনো ঘটনা সেখানে ছিল বলে মানতেই চাননি তিনি।’

এমবাপ্পের টুইটের পর ভুল স্বীকার করে সুর বদলে ফেলেছেন লো গ্রায়েত, ‘এমবাপ্পের সঙ্গে আমি একমত। সব বুঝতে পেরেছি। ওর সঙ্গে কোনো ঝামেলা নেই আমার। বরং তার প্রতি সব সময়ই টান অনুভব করি আমি।’

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top