দেড় বছরের শিশুর শরীরে ‘ব্ল্যাক ফাঙ্গাস’

140324cop_kalerkantho_pic.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতে ভয়ানক তাণ্ডব চালাচ্ছে করোনাভাইরাস। এর মধ্যে আবার আতঙ্ক ছড়ালো ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। এই প্রথম শিশুর শরীরে মিলল এই ধরনের ছত্রাকের খোঁজ। আক্রান্ত ওই শিশু ভারতের রাজস্থানের বিকানেরের বাসিন্দা। এছাড়া গুজরাটের আহমেদাবাদে ১৫ বছরের কিশোরের শরীরেও মিলেছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস।এরই মধ্যে দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারি ঘোষণা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে।

রাজস্থান, তেলেঙ্গানা, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশের পথ ধরে পশ্চিমবঙ্গেও এই রোগকে মহামারি ঘোষণা করা হয়েছে।পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা কালো ছত্রাক সবচেয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে গুজরাটে। সেখানে এই ভাইরাসে আক্রান্ত ২ হাজার ৮৫৯ জন। দ্বিতীয় স্থানে মহারাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্ত ২ হাজার ৭৭০ জন। অন্ধ্রপ্রদেশে ৭৬৮ জন এবং মধ্যপ্রদেশে ৭৫২ জন এই মারণ ছত্রাকের কবলে পড়ে চিকিৎসারত।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, যে রাজ্যে রোগীর সংখ্যা বেশি, সেই রাজ্যে বেশি করে ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। সেই যুক্তি অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ওষুধও সরবরাহ করা হয়েছে গুজরাটে। সেই রাজ্যে গেছে ওষুধের ৭ হাজার ২১০টি ডোজ। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে দেওয়া হয়েছে ৬ হাজার ৯৮০টি ডোজ। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ওষুধ এমফোটারিকিন বি’র উৎপাদন বাড়ানো হচ্ছে। আগামী দিনে রাজ্যগুলো প্রয়োজন মতো ওষুধ পাবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top