পরিমাণে লিচু কম দেওয়ায় জরিমানা

rongpur1-20220525201540.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : চলছে মধুমাস জ্যৈষ্ঠ। হাটে-বাজারে বিক্রি হচ্ছে হরেক রকম ফল। এই মৌসুমে এক শ্রেণির অসাদু ব্যবসায়ী পরিমাণে ফল কম দিয়ে প্রতারণা করছে। এমন ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযানে নেমেছে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

এ সময় দোকানে মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করা, পরিমাণে লিচু কম দেওয়া এবং মেয়াদহীন পণ্য ও খাদ্য বিক্রির অপরাধে দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার (২৫ মে) বিকেলে রংপুর নগরীর সিটি বাজার ও খামারপাড়া এলাকায় এ অভিযান দুটি পরিচালনা করা হয়। এতে নেতৃত্ব দেন ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আরিফ মিয়া।

এ অভিযানে মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করা ও লিচু পরিমাণে (সংখ্যায়) কম দেওয়ার অপরাধে সিটি বাজারে আকাশ ফল ঘরকে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া খামার মোড়ে আমদানিকারকবিহীন বিদেশি প্রসাধনী বিক্রয়, মোড়কজাত দইয়ের মূল্য ও মেয়াদ উল্লেখ না করার অপরাধে লিফা ফাস্ট ফুডকে ১ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

এ সময় রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। অভিযানে দুই প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে জরিমানার টাকা তাৎক্ষণিকভাবে আদায় করা হয়। এ ছাড়া অভিযান চলাকালে সচেতনতামূলক মাইকিং, লিফলেট ও পাম্পলেট বিলির মাধ্যমে ব্যবসায়ী ও ভোক্তা সাধারণকে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ সম্পর্কে অবহিত ও সচেতন করা হয়।

জনস্বার্থে এ ধরনের তদারকি অভিযান পরিচালনা অব্যাহত থাকবে জানিয়ে সহকারী পরিচালক মো. আরিফ মিয়া বলেন, ফল ব্যবসায়ীদের অনেকেই ইচ্ছাকৃতভাবে লিচুর পরিমাণ কম দিয়ে সাধারণ ভোক্তার সাথে প্রতারণা করে থাকে।

আমরা অভিযানের সময়  ৫০টি লিচুর একটি আঁটিতে সংখ্যায় তিন-চারটি লিচু কম পেয়েছি। এরকম অনেকেই সংখ্যায় কম রেখে দেয়। আমরা তাদের সতর্ক করে দিয়েছি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top