ভার্চ্যুয়াল আদালতে ২৪৭ শিশুর জামিন

image-142160-1590115932.jpg

ভার্চ্যুয়াল আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন অভিযোগে তিনটি শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে থাকা ২৪৭টি শিশু জামিন পেয়েছে। এ হিসাব গত এক সপ্তাহের। তাদের মধ্যে ১৭৪টি শিশুকে ইতোমধ্যে তাদের অভিভাবকের কাছে বুঝিয়েও দেওয়া হয়েছে।

সমাজসেবা অধিদপ্তর ও সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে, ১২ মে থেকে ২০ মে পর্যন্ত ভার্চ্যুয়াল আদালতের (শিশু আদালত) মাধ্যমে ২৪৭টি শিশু জামিন পায়। এদের মধ্যে গাজীপুরের টঙ্গি শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) থাকা ১৪২ শিশু, গাজীপুরের কোনাবাড়ী শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র (বালিকা) থেকে ২০ শিশু এবং যশোরের পুলেরহাটের শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) থাকা ৮৫ শিশু জামিন পেয়েছে।

জামিনপ্রাপ্তদের মধ্যে টঙ্গি শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে ১০৬ শিশু, কোনাবাড়ি থেকে ৯ মেয়ে শিশুকে এবং পুলেরহাট শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে ৫৯ শিশুকে তাদের অভিভাবকের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান বলেন, গত এক সপ্তাহে শিশু আদালত থেকে ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে ২৪৭টি শিশু জামিন পেয়েছে। ইতিমধ্যে ১৭৪ শিশুকে তাদের অভিভাবকের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। ইউনিসেফ শিশুদের জামিন পরবর্তী সুরক্ষা তদারক করছে। শিশু অধিকার–সংক্রান্ত সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ কমিটির কাছে (স্পেশাল কমিটি অব চাইল্ড রাইটস) এ বিষয়ে সংস্থাটি নিয়মিত প্রতিবেদনও দিচ্ছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: নিরাপত্তা সতর্কতা!!!