অর্থনৈতিক নিরাপত্তায় নবম স্থানে বাংলাদেশ

GDP-growth-bd-2005181452.jpg

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে সারা বিশ্বের অর্থনৈতি যখন টালমাটাল অবস্থা, সেখানে বাংলাদেশের অর্থনৈতি তুলনামূলকভাবে ভালো অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছে লন্ডন ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনমিস্ট। প্রতিষ্ঠানটির এক জরিপে সুরক্ষিত অর্থনীতির দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান নবম স্থানে রয়েছে।

মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) বিপরীতে সরকারি দেনার পরিমাণ, মোট বৈদেশিক ঋণ এবং ঋণের সুদ ও অন্যান্য খরচকে আমলে নিয়ে এই জরিপ করা হয়েছে। কোভিড-১৯ এর কারণে বিশ্ব অর্থনীতি যখন হুমকির মুখে তখন ৬৬টি দেশের অর্থনীতি নিয়ে গবেষণা চালিয়ে বাংলাদেশ সম্পর্কে এমন তথ্য দিল গণমাধ্যমটি।

সম্প্রতি প্রকাশিত এই জরিপে ভারতের অবস্থান ১৮তম, পাকিস্তানের ৪৩তম এবং শ্রীলঙ্কার অবস্থান ৬১তম। জরিপে দেখা যায়, চীন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের অর্থনীতির চেয়েও কম ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশ।

মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) বিপরীতে সরকারি দেনার পরিমাণ, মোট বৈদেশিক ঋণ এবং ঋণের সুদ ও অন্যান্য খরচকে আমলে নেয়া হয়েছে এই জরিপে। সেই সঙ্গে একটি দেশের বৈদেশিক মুদ্রা ও সম্পদের রিজার্ভ কতটুকু সুরক্ষা দিতে পারে এই বিষয়টিও বিবেচনা করা হয়েছে।

দ্যা ইকোনমিস্টের বিশেষজ্ঞদের মতে, চলমান সঙ্কটের মধ্যেও বাংলাদেশ অপেক্ষাকৃত নিরাপদ অবস্থানে রয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় বিশ্বের কোন দেশ কতটুকু অর্থনৈতিক নিরাপদ, সেটা ইকোনমিস্টের তালিকায় প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। কোভিড-১৯ প্রধানত তিনভাবে উদীয়মান অর্থনীতিগুলোকে ক্ষতির মুখে ফেলেছে। এগুলো হলো; জনগণের চলাচলের স্বাধীনতা হরণ, রফতানি আয়ে ধ্স সৃষ্টি এবং বিদেশি পুঁজি প্রবাহে বাধা সৃষ্টি।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়- রফতানি খাতে সবচেয়ে বড় ধ্স অব্যাহত থাকবে। এর আগে জ্বালানি তেলের রেকর্ড দরপতনের কারণে উপসাগরীয় আরব দেশগুলোর অর্থনীতি তাদের চলতি বাজেটে ৩ শতাংশের বেশি ঘাটতির মুখে পড়বে বলে আইএমএফের পূর্বাভাষে বলা হয়েছে। গতবছর এসব দেশের বাজেট উদ্বৃত্ত ছিল ৫ দশমিক ৬ শতাংশ। সাধারণত যখন রফতানি আয় কমে তখন প্রায় সকল দেশই বিদেশি ঋণ নিয়ে সেই ঘাটতি পূরণ করার চেষ্টা করে। তবে বিদেশি বিনিয়োগ প্রত্যাহার এবং মূলধনের বহিঃমুখী প্রবাহের চাপে ঋণের খরচও বেড়ে যেতে পারে। যা নগদ অর্থ সঙ্কটে থাকা তুলনামূলক ধনী আরব দেশগুলোকেও চাপের মুখে ফেলবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।