পাপকাজে মানুষ প্ররোচিত হয় যে কারণে

152335mosque_abu_ubaida_mal.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : নেককারের সংস্পর্শ নেক কাজ করার আগ্রহ বাড়ায় আর মন্দ লোকের সংস্পর্শ মন্দ কাজ করতে প্ররোচিত করে। বলা হয়ে থাকে—‘সৎসঙ্গে স্বর্গবাস, অসৎ সঙ্গে সর্বনাশ। ’ আর পাপীদের সঙ্গে ওঠা-বসা নিজের মধ্যে মন্দ প্রভাব ফেলে। এ জন্য পবিত্র কোরআনে নেককার ও সত্যবাদীদের সঙ্গী হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মহান আল্লাহ ইরশাদ করেন, ‘হে মুমিনরা! তোমরা আল্লাহকে ভয় করো এবং সত্যবাদীদের অন্তর্ভুক্ত হও। ’ (সুরা : তাওবা, আয়াত : ১১৯)

এর বিপরীতে মন্দ লোকের সংস্রব পরিত্যাজ্য। মহান আল্লাহ বলেন, ‘যখন তুমি দেখবে যে লোকেরা আমার আয়াতসমূহে ছিদ্রান্বেষণ করছে, তখন তুমি তাদের থেকে সরে যাও, যতক্ষণ না তারা অন্য কথায় লিপ্ত হয়। আর যদি শয়তান তোমাকে এটা ভুলিয়ে দেয়, তাহলে স্মরণ হওয়ার পর আর জালিম সম্প্রদায়ের সঙ্গে বসবে না। ’ (সুরা : আনআম, আয়াত : ৬৮)

আরও পড়ুন : সাতক্ষীরায় ২ দোকান থেকে ৭৫০ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ

পাপী ব্যক্তিদের সঙ্গে ওঠা-বসা না করার জন্য মুমিনদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নবী করিম (সা.) বলেন, ‘তোমরা রাস্তায় বসা থেকে বিরত থাকো। তারা বলেন, হে আল্লাহর রাসুল (সা.)! রাস্তায় বসা ছাড়া আমাদের কোনো উপায় নেই। সেখানে বসে আমরা আলোচনা করে থাকি।

তিনি বলেন, একান্তই যদি বসতে হয়, তাহলে রাস্তার হক আদায় করবে। লোকেরা জিজ্ঞেস করল, রাস্তার হক কী? তিনি বলেন, দৃষ্টি সংযত রাখা, কাউকে কষ্ট দেওয়া থেকে বিরত থাকা, সালামের জবাব দেওয়া, সৎস্যজের আদেশ ও মন্দ কাজে বাধা দান করা। (মুসলিম, হাদিস : ২১২১)

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top