ডুমুরিয়ায় ব্রীজ নির্মাণের পর সড়ক কর্তনের দাবিতে অনড় শোভনা-খর্ণিয়াবাসি

dumuria-pic-29-4-19.jpg

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি, Prabartan | প্রকাশিতঃ ২১:০২, ২৯-০৪-১৯

ডুমুরিয়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে মরা ভদ্রা নদীতে প্রায় ২২ কিলো মিটার নদী খনন প্রায় সম্পন্ন ।

এর আগে ভদ্রা যখন ভরাট হয়ে যায়,তখন ওই নদী গর্ভে বাড়ী-ঘর-রাস্তাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠে।

যাতায়াতের জন্য নির্মান করা হয় কার্পেটিং সড়ক। যে সড়ক ব্যবহার করে আসছে এলাকার হাজার হাজার মানুষ। এমনই একটি নদী সংযোগ কার্পেটিং সড়ক রয়েছে যার নাম শোভনা-খর্নিয়া সড়ক। ইতো মধ্যে ওই স্থানে ব্রীজ নির্মানের আগেই সড়কটি বিচ্ছিন্ন করা হবে বলে ঘোষনা দেয় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান।

হাজার হাজার মানুষের রুজি-রুটির কথা না ভেবে ৩০/৩৫ বছর আগে নির্মিত সড়কটিতে ব্রীজ নির্মনের আগেই তা কর্তনের বিষয়টি কোন অবস্থায় মেনে নিতে পারছে না দু‘ইউনিয়নবাসি। প্রতিবাদে ফুসে উঠেছে সর্বস্তরের মানুষ।

তারই ধারাবাহিকতায় ভ্যান,মটর ড্রাইভার্স সমিতি ও এলাকাবাসির যৌথ আয়োজনে খননের আগেই ব্রীজ নির্মানের দাবিতে এক প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় পশ্চিম শোভনা পুরাতন খেয়াঘাট চত্বরে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সাবেক ইউপি সদস্য খোদাবক্স শেখ। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী দৈনিক প্রবর্তন সম্পাদক মোঃ মোস্তফা সরোয়ার।

সভায় বক্তব্যদেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সরদার আব্দুল গণি,ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী গাজী আব্দুল হালিম,প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক এসএম জাহাঙ্গীর আলম,খর্ণিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি নারায়ন মল্লিক,সাংবাদিক এস রফিকুল ইসলাম,মানবাধিকার কর্মী সোহরাব হোসেন,ইউপি সদস্য মোঃ শফিউল্লাহ,আ’লীগনেতা গোলাম রসুল মোল্যা, এনজিও প্রতিনিধি শিবপদ দাস প্রমূখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মোস্তাক আহমেদ।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top