ঝিনাইদহে আইসোলেশনে এইচএসসি পরীক্ষার্থী, আসছে আইইডিসিআরের বিশেষ টিম

image-132124-1584967686.jpg

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে তানভীর নামে এক এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে আইসোলেশন ইউনিটে রাখা হয়েছে।

সোমবার (২৩ মার্চ) বিকাল ৩টার দিকে তাকে শিশু হাসপাতালের বিশেষায়িত একটি ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়।

তানভীর ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলার বড়গ্রামের মাহাবুবুর রহমানে ছেলে। সে শৈলকুপা উপজেলার কাজীপাড়া এলাকার নানার বাড়িতে থেকে স্থানীয় একটি ডিগ্রি কলেজে পড়াশোনা করত।

ওই শিক্ষার্থীর প্রয়োজনীয় পরীক্ষার জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) ঢাকার রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) থেকে একটি বিশেষজ্ঞ টিম আসার কথা রয়েছে বলে জানা গেছে।

শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রাশেদ আল মামুন বলেন, ‘কয়েকদিন আগে ওই শিক্ষার্থী ঢাকা থেকে এসেছে। জানতে পেরেছি- ছেলেটা সেখানে একজন চীনা নাগরিকের সংস্পর্শে ছিল। শৈলকুপাতে আসার পর থেকে সে ঠান্ডা-কাশিতে ভুগছে। আজ প্রচণ্ড জ্বর নিয়ে হাসপাতালে আসে। সিম্পটম (লক্ষণ) দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত।’

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, ওই শিক্ষার্থীকে আমরা প্রাথমিকভাবে ঢাকাতে পাঠাতে চাইলেও পরে আইইডিসিআরের নির্দেশে তাকে জেলার আইসোলেশন ইউনিটে রেখেছি। কাল ঢাকা থেকে বিশেষজ্ঞ একটি টিম আসার কথা রয়েছে। তারা রক্তসহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য নমুনা নিয়ে ফলাফল জানালেই সঠিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যাবে সে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কি না।

এ দিকে, খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আইয়ুব আলী, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. জাকির হোসেনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের চিকিৎসক ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাগণ ইতোমধ্যেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

উল্লেখ্য, করোনার ভয়ে ইতোমধ্যেই জেলা শহর থেকে শুরু করে সকল উপজেলায় লোক সমাগম কমে যেতে শুরু করেছে। এখন পর্যন্ত জেলায় বিদেশফেরতসহ মোট ৬১১ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।