‘ক্রাইস্টচার্চে নিহত বাংলাদেশির সংখ্যা বেড়ে ৮ হতে পারে’

IMG_20190317_18244620190317194934.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট, prabartan | প্রকাশিত: ২১:০৫, ১৭- ০৩-১৯

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ হামলায় নিহতের বাংলাদেশের সংখ্যা বেড়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, সেখানে মৃতের সংখ্যা ৪ থেকে বেড়ে ৮ জনে উন্নীত হতে পারে। তবে ঠিক কতজন বাংলাদেশি মৃত্যুবরণ করেছেন, সেটা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

রোববার (১৭ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ স্টাডি ট্রাস্ট। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা জানতে পেরেছি নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশি নাগরিকদের নিহতের সংখ্যা বেড়েছে। সেখানে মৃতের সংখ্যা ৪ থেকে বেড়ে ৮ জনে উন্নীত হতে পারে। তবে ঠিক কতজন বাংলাদেশি মৃত্যুবরণ করেছেন, সেটা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ক্রাইস্টচার্চে হামলার ঘটনার পর হাইকমিশনের সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ের কোনো ঘাটতি নেই।  ক্রাইস্টচার্চ হামলার পরিপ্রেক্ষিতে কালচার অব পিস বা ‘শান্তির জন্য সংস্কৃতি’- শীর্ষক কর্মসূচি আমরা বাস্তবায়ন করবো। এর মধ্যে দিয়ে অপরের ধর্ম ও সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধা বাড়বে। ফলে হিংসা বিদ্বেষ ও হানাহানি কমবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন সময়ে স্টোরে হামলায় এখন পর্যন্ত ৪৮ জন নিহত হয়েছে। আমরা সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে দেশটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছি। এছাড়া বিশ্বের যেখানেই আমাদের খেলোয়াড়রা খেলতে যাবেন, আমার নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই সেখানে তাদের পাঠাবো।

অনুষ্ঠান শেষে বেরিয়ে আসার পর সাংবাদিকদের মন্ত্রী বলেন, ক্রাইস্টচার্চ হামলার ঘটনায় নিহত বাংলাদেশি নাগরিকের সংখ্যা মন্ত্রণালয় থেকে প্রেস রিলিজ দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।

এর আগে শনিবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানান, ক্রাইস্টচার্চে ১০ জন বাংলাদেশি হতাহত হয়েছেন। এর মধ্যে নিহতের সংখ্যা দু’’জন বলে উল্লেখ করেছিলেন তিনি।

জাতীয় প্রেসক্লাবের এই সেনিমারে বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক কামরুল হাসান খান, সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, শহীদ সন্তান ডা. নুজহাত চৌধুরী ও ডিকাব সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম হাসিব।

এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাবেক রাষ্ট্রদূত এ কে এম আতিকুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ স্টাডি ট্রাস্টের ট্রাস্টি ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া। সঞ্চলনা করেন বাংলাদেশ স্টাডি ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top