ফেসবুকে কুরআন ও মহানবীকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য, ছাত্রসহ আটক ৬

image-130341-1584280805.jpg

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে সিরাজগঞ্জে এক কলেজছাত্রসহ ৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার (১৫ মার্চ) দুপুরে তাদের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে সিরাজগঞ্জের তাড়াশ থানা পুলিশ।

এর আগে শনিবার (১৪ মার্চ) রাতভর অভিযান চালিয়ে মো. নাসিম মাহমুদ (২০) নামে এক কলেজছাত্রসহ ওই ছয়জনকে আটক করা হয়।

নাসিম মাহমুদ নাটোরের সিংড়া কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও তাড়াশ উপজেলার রোকনপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।

পুলিশ বাকি পাঁচজনের নাম-পরিচয় না জানালেও স্থানীয়দের দাবি- এ ঘটনায় আটক অপর পাঁচজন হলো- তাড়াশ উপজেলার রোকনপুর গ্রামের মৃত ইনসাব আলীর ছেলে ইয়াবুব আলী (৩৫), দামড়া গ্রামের আজম আলীর ছেলে দুলাল হোসেন (২০), রানীরহাট গ্রামের মৃত ইয়াসিনের ছেলে নূর ইসলাম (৩৭), কলামুলা গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে জাব্বারুল ইসলাম (২৫) ও শেরপুর উপজেলার নয়ানাপাড়া গ্রামের বলরাম চন্দ্রের ছেলে ফটিক চন্দ্র (৪২) রয়েছে। তারা সকলে ফটোস্ট্যাট ব্যবসায়ী ও লিফলেট প্রচারকারী নাসিমের বন্ধু  বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

অভিযানের নেতৃত্বে থাকা সহকারী পুলিশ সুপার (রায়গঞ্জ সার্কেল) ইমরান রহমান বলেন, ‘আটকদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মামলা দায়ের না হওয়া পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না।’

এ দিকে, পুলিশের একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে- নাসিম মাহমুদ নামে ওই কলেজছাত্র সম্প্রতি ‘লালন মাহম্মদ’ নামে একটি ফেসবুক আইডি খুলে। এরপর সেই আইডিতে ‘কোনো অদৃশ্য ঈশ্বরের পাঠানো গ্রন্থ নয় কুরআন। বরং মুহাম্মদ (সা.) এর একটি যুগান্তকারী রচনা  এই বইটি’- একথা লিখে একটি স্ট্যাটাস দেয়। এতে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগায় সাধারণ মানুষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।

পরে খবর পেয়ে পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নেমে রাতভর অভিযান চালিয়ে ওই ছয়জনকে আটক করে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।