খুলনায় ব্যাটারি চালিত রিকশা চালুর দাবিতে মানববন্ধন

77247262.jpg

ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদক: খুলনায় ব্যাটারি চালিত বা বিদ্যুৎ চালিত  রিকশা চালুসহ ৩ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছে চালক সংগ্রাম পরিষদ।

শনিবার (১৩ মার্চ) সকাল ১০টায় পিকচার প্যালেস মোড়ে স্বাস্থ্য বিধি মেনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের খুলনা জেলা কমিটির আহ্বায়ক ইলিয়াস আকনের সভাপতিত্বে সঞ্চালনা করেন সংগঠনের উপদেষ্টা জনার্দন দত্ত নাণ্টু। সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, বাম গণতান্ত্রিক জোট খুলনা জেলা সমন্বয়ক মুনির চৌধুরী সোহেল, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট খুলনা জেলা সভাপতি শ্রমিক নেতা আব্দুল করিম, টিইউসি খুলনা জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক শ্রমিকনেতা এস এম চন্দন, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট খুলনা জেলা কোষাধ্যক্ষ কোহিনুর আক্তার কণা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট খুলনা জেলা সভাপতি সনজিত মণ্ডল।

বক্তব্য রাখেন, রিকশা ও ইজিবাইক শ্রমিকনেতা মোঃ মানিক মিয়া, শেখ শহিদ, আব্দুল হাই, শহীদুল সিকদার মনির, হারন-উর রশীদ, কবিরুল ইসলাম, জুলফিকার আলী, শহীদুল ইসলাম, হাফিজুর রহমান প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ‘সারা দেশে ব্যাটারিচালিত বাহনের সাথে বর্তমানে কয়েক কোটি শ্রমজীবী মানুষের জীবিকা যুক্ত। কোনো আইন বা নীতিমালা না থাকায় এই শ্রমজীবী মানুষেরা প্রতিনিয়ত হয়রাণির শিকার হয়। করোনা মহামারীর দুর্যোগপূর্ণ সময়েও রিকশা ও ইজিবাইক চালকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অর্থনীতির চাকা সচল রেখেছে। অথচ তাদের জন্য সরকারি কোনো আর্থিক সহযোগিতা নেই। উপরন্তু তাদের গাড়ী আটক করে অতিরিক্ত টাকা নিয়ে তাদের হয়রাণি করা হচ্ছে।’

নেতৃবৃন্দ তাদের ৩ দফা দাবিতে বলেন, (১) নকশা, আধুনিকায়ন ও নীতিমালা প্রণয়ন করে ব্যাটারিচালিত/বিদ্যুৎ চালিত যানবাহণের লাইসেন্স প্রদান করো। প্রকৌশলী, পরিবহণ বিশেষজ্ঞ, বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় অভিজ্ঞ মেকানিকদের নিয়োগ করে ব্যাটারিচালিত যানবাহণের যথোপযুক্ত নকশা ও নিরাপদ ব্রেক পদ্ধতি নিশ্চিত করো।

(২) বিকল্প ব্যবস্থা বা কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা ছাড়া রিকশা, ব্যাটারিচালিত রিকশা বা যানবাহণ ও ইজিবাইক উচ্ছেদ ও হয়রাণি বন্ধ করো।

(৩) প্রতিটি সড়ক-মহাসড়কে সরকারের ঘোষণানুযায়ী রিকশা, ইজিবাইকসহ স্বল্পগতির এবং লোকাল যানবাহণের জন্য পৃথক লেন, সার্ভিস রোড নির্মাণ করো। সর্বত্র পুলিশী হয়রাণি, নির্যাতন বন্ধ ও তোলাবাজী-চাঁদাবাজী বন্ধ করো।

সমাবেশ থেকে আগামী ১৫ মার্চ সকাল ১১টায় ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে কেন্দ্রীয় সমাবেশ এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করার কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানান হয়।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top