বিপাকে ইমরান খান, চলে যেতে পারে প্রধানমন্ত্রীত্ব!

-খান.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট, prabartan | প্রকাশিত: ১৮:৪৬, ১০- ০৩-১৯

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ক্ষমতাচ্যুতের জন্য লাহোর হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। সংবিধানের ৬২ ও ৬৩ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী ২০১৮ সালে দেশটির নির্বাচনের মনোনয়নপত্র পেতে নিজের এক মেয়েকে গোপণ করার দায়ে এই রিট আবেদন করা হয়।

সোমবার (১১ মার্চ) সেই রিট আবেদনের দিন ধার্য করেছে লাহোর হাইকোর্ট। ধারণা করা হচ্ছে এবার ঘোর সঙ্কটে পড়তে যাচ্ছেন পাকিস্তানের ইমরান খান। চলে যেতে পারে প্রধানমন্ত্রীত্বের গদিও।

শনিবার (৯ মার্চ) পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে লাহোর হাইকোর্টে একটি আবেদন করা হয় বলে জানা গেছে। সোমবার রিটের শুনানি হবে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম ডন।

ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অনা-লুইসা (সীতা) হোয়াইট ছিলেন ইমরান খানের প্রাক্তন প্রেমিকা। তার মেয়ে টাইরিন জেট হোয়াইট খানকে ইমনার খানের মেয়ে দাবি করা হয়৷ বলা হচ্ছে ইমরান খান ২০১৮ সালের নির্বাচনেন মনোনয়ন পত্রে এই বিষয়টি গোপণ করেছেন৷

সীতা হোয়াইট ইমরানের প্রাক্তন প্রেমিকা বলা হয়৷ এই বিষয়ে ইমরান কে আগেও একাধিকবার প্রশ্ন করা হয়েছে তবে সে কোনও উত্তর দেননি৷ এছাড়া সীতা হোয়াইটও ইমরান থখান কে তার মেয়ের বায়োলজিকাল বাবা বলেছে৷

সীতা হোয়াইট অনেক বড় এক ব্যবসায়ীর মেয়ে৷ তিনি এখন এই পৃথিবিতে নেই৷ বলা হয় লর্ড গার্ডন হোয়াইট তার মেয়ে সীতা কে বলেছিলেন ইমরান কে বিয়ে করলে তাকে সম্পত্তির কোনও অংশ দেবেন না৷ তার পরেই তাদের বিয়ে আটকে যায়৷

জানা যায়, হাইকোর্টে ওই পিটিশনে তাকে অযোগ্য আখ্যা দেওয়ার দাবি উঠেছে। তবে তার বিরুদ্ধে সৎ এবং ধর্মপরায়ন না হওয়ার পাশাপাশি ২০১৮ সালের সাধারণ নির্বাচনের মনোনয়ন পত্রতে এক মেয়ের বাবা হওয়ার কথা গোপন করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এই রিটের শুনানির জন্য রাজি হয়ে রিট আবেদন গ্রহণ করে লাহোর হাইকোর্ট৷ তাকে অযোগ্য ঘোষণা করার আবেদনের শুনানি সোমবার (১১ মার্চ) হবে বলে জানা গিয়েছে৷

এই রিট আবেদনে বলা হয়েছে ইমরান খান পাকিস্তানের সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৬২ এবং ৬৩-র আইন লঙ্ঘন করেছেন৷ সেই কারনেই তাকে অযোগ্য ঘোষণা করার দাবি তোলা হয়েছে৷ এই অনুচ্ছেদে সাংসদ সদস্য এর জন্য সত এবং ধর্মপরায়ণ হওয়ার শর্ত দেওয়া রয়েছে ৷

উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীরে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় বিশেষায়িত বাহিনীর ৪৯ জওয়ান নিহতের পাল্টা জবাব দিতে পাকিস্তানে আকস্মিক হামলা চালায় ভারতীয় বিমান বাহিনী। এরপর থেকেই দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা চরমে অবস্থান নেয়।

সীমান্তরেখা পেরিয়ে পাল্টাপাল্টি হামলা আর আকাশপথে একের পর এক হামলার হুঁশিয়ারি। জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চেও বেশ সুনাম অর্জন করলেও অন্যদিকে মুখ পুড়তে বসেছে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এই অবস্থায় সঙ্কটে পড়েছে তার ক্ষমতা থাকা না থাকা নিয়েও।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top