শততম টি-টোয়েন্টি খেলতে নামছেন মুশফিক

1241428.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে টানা হারের বৃত্ত ভাঙার পরদিন সকালেই মিলল দারুণ এক সুখবর। গতকাল ঐচ্ছিক অনুশীলন চলাকালীনই জানিয়ে দেওয়া হলো, আঙুলের ফোলা কমে গেছে মুশফিকুর রহিমের। তাই আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে তাঁর খেলা নিয়ে কোনো অনিশ্চয়তাও নেই।আজ নিজের শততম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলতে নামছেন মুশফিক।

যে ম্যাচ জিতে আফগানদের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের রঙেও রঙিন হতে চায় বাংলাদেশ। যদিও মুশফিকের তথ্য-পরিসংখ্যান এই সংস্করণে দলের দৈন্যও ফুটিয়ে তোলার পক্ষে যথেষ্ট। দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ব্যাটার ৯৯ ম্যাচে ১,৪৬৫ রান করেছেন মাত্র ১৯.৭৯ গড়ে, স্ট্রাইক রেট ১১৫.৩৫। অবশ্য গত অক্টোবর-নভেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্ব থেকে শুরু হওয়া টানা হারের চক্কর থেকে এই আফগানিস্তান সিরিজের প্রথম ম্যাচ দিয়েই বের হয়েছে স্বাগতিকরা। টানা আট ম্যাচ হারার পর আফগানদের বিপক্ষে ৬১ রানের প্রভাববিস্তারী জয়ে ছন্দে ফেরার ইঙ্গিতও দিয়েছে মাহমুদ উল্লাহর দল। সিরিজ জিততে আজও চাই একই পারফরম্যান্সের পুনরাবৃত্তি।

আরও পড়ুন : পিরোজপুরে ট্রলির চাপায় প্রাণ গেল ভ্যানচালকের

সেরকম হলে সফরকারীদের বিপক্ষে নেওয়া হবে মধুর এক প্রতিশোধও। এর আগে ২০১৮ সালে ভারতের দেরাদুনে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে আফগানদের সামনে ভরাডুবিও হয়েছিল বাংলাদেশের। তিন ম্যাচেই হেরেছিল ৪৫ রান, ৬ উইকেট ও ১ রানে। টি-টোয়েন্টিতে দুই দলের সার্বিক পরিসংখ্যানেও পিছিয়ে স্বাগতিকরাই। এখন পর্যন্ত সাতবারের দেখায় আফগানরা এগিয়ে ৪-৩-এ। আজ সিরিজ জিতলে তাই এ ক্ষেত্রে আসবে সমতাও।

তবে সিরিজটি যখন দুই ম্যাচের, তাই একটু পা হড়কালেই আর ফিরে আসার কোনো সুযোগ নেই। এ জন্যই বাড়তি সতর্কতার দাবি থাকল বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথের কথায়, ‘এটি যেহেতু দুই ম্যাচের সিরিজ, তাই সিরিজ জিততে চাইলে পরের ম্যাচটিও জেতা চাই। এ কারণেই নিশ্চিত থাকুন, আমরা কাউকেই বিশ্রামে রেখে নামছি না। আমরা আমাদের সেরা একাদশ নিয়েই খেলব। ’

একাদশে যখন মুশফিক ফিরছেন, তখন আগের ম্যাচের উইনিং কম্বিনেশনও ভাঙছে নিশ্চিতভাবেই। যত দূর জানা গেছে, কোপটা পড়তে পারে নাঈম শেখের ওপরই। বিপিএল থেকে রানখরায় ভুগতে থাকা এই ব্যাটার সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওপেন করেছেন মুনিম শাহরিয়ারের সঙ্গে। যে কারণে এক ধাপ নেমে তিনে ব্যাটিং করতে হয়েছে লিটন কুমার দাসকে, চারে সাকিব আল হাসান। আজ নাঈম ছিটকে পড়লে লিটন ফিরে যাবেন ওপেনিংয়ে, সাকিব উঠে আসবেন তিনে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর দেশের মাটিতে পাকিস্তান সিরিজে বাদ পড়া লিটন এবার প্রথম ম্যাচ দিয়েই রানে ফিরেছেন। আর বল হাতে নিজের প্রথম দুই ওভারেই একরকম ম্যাচ ভাগ্য নিজেদের দিকে ঘুরিয়ে দেন নাসুম আহমেদ। নিজেদের ভূমিকা এখন আরো ভালো বোঝেন বলেই তাঁদের এমন সাফল্য বলে জানালেন হেরাথ, ‘উইকেট যেমনই হোক না কেন, নিজেদের ভূমিকাটা জানতে হবে বোলারদের। আমাদের বোলাররা সেটি জানে বলেই সফল হয়েছে। ’ শেষ ম্যাচকে ঘিরেও একই রকম সাফল্যের প্রত্যাশা।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top