শিল্পীদের নানা সংকটের কথা তুলে ধরলেন: সুবর্ণা মুস্তাফা

-সামান্য-একটা-ব্যাংক-লোনও-পায়-না-সুবর্ণা-মুস্তাফা.jpg

শিল্পীরা সামান্য একটা ব্যাংক লোনও পায় না সুবর্ণা মুস্তাফা

ডেস্ক রিপোর্ট, prabartan | প্রকাশিত: ১৯:৪৪, ০৪-০৩-১৯

সুবর্ণা মুস্তাফা গতকাল জাতীয় সংসদে এমপি হিসেবে প্রথম বক্তব্যে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবে বলেছেন, বিদেশি চলচ্চিত্রের অবাধ প্রদর্শনের কারণে দেশি চলচ্চিত্র মার খাচ্ছে।’ এ জন্য বিদেশি সিরিয়াল ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনে কর এবং দেশি চলচ্চিত্রে প্রণোদনা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন তিনি। সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সুবর্ণা মুস্তাফা শিল্পীদের নানা সংকটের কথা তুলে ধরলেন জাতীয় সংসদে।

শিল্পীদের সংকটের কথা তুলে ধরে সুবর্ণা মুস্তাফা বলেন, ‘বাংলাদেশে শিল্পী কোনো স্বীকৃত পেশা নয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের দেশের মঞ্চ চর্চাকে, থিয়েটারকে এইন্টার টেইনমেন্ট টাস্ক ফ্রি করে দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, এরা নিজেদের পকেটের টাকা বের করে থিয়েটার করছে, এরা ট্যাক্স দিবে কীভাবে? সেই আইনটি এখনো বিরাজমান, আমরা এখনো সেই সুবিধা ভোগ করছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রী বেইলি রোডে মহিলা সমিতিতে নাটক দেখেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর ভাই শেখ কামাল অভিনয় করতেন মঞ্চে। আন্ত-বিশ্ববিদ্যালয় নাটক প্রতিযোগীতাতে উনি প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন। এতো কিছুর পরেও শিল্পী বাংলাদেশে কোনো স্বীকৃত পেশা নয়। আমরা চাইলে সামান্য একটা ব্যংক লোনও নিতে পারি না। বিষয়টা অত্যন্ত বিব্রতকর। অনেক স্বপ্ন নিয়ে আমরা সবাই সংসদে এসেছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের দিয়েছেন লক্ষ্য, আর তাঁরই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই লক্ষ্য অর্জনের সুযোগ করে দিয়েছেন।’

সুবর্ণা মুস্তাফা আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। মায়ের মমতা দিয়ে তিনি মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বিশ্ব দরবারে মাদার অব হিউম্যানিটি হিসেবে ভূষিত হয়েছেন। বিশ্বের অন্যতম রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে পেয়েছেন আর্থ পুরস্কার। শেখ হাসিনা শুধু স্বপ্ন দেখান না, তা বাস্তবায়নও করেন। তিনি আজ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করে পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। অনেক ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে পদ্মা সেতু-রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্র আজ দৃশ্যমান। দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে।

এ সময় সুবর্ণা মুস্তাফা তার গলায় একুশে পদক তুলে দেয়া ও এমপি হিসেবে মনোনয়ন দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top