খুলনার নয়টি উপজেলায় উৎসব মুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র দাখিল

.jpg

হারুন অর রশিদ, prabartan | প্রকাশিত: ২০:৫১, ০৪- ০৩-১৯

খুলনা:উৎসবমুখর পরিবেশে সোমবার পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে খুলনার নয়টি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য আওয়ামীলীগ মনোনীত ৯ জন প্রার্থীসহ ৩৪ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৫৮ জন ও ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ৩৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

  • চেয়ারম্যান পদে ৩৪
  • ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) ৫৮
  • ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ৩৭
  • বিএনপির রয়েছে ৪ প্রার্থী

কেন্দ্রিয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ি এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। তবে খুলনায় চেয়ারম্যান পদে একজন ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিন জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তারা হলেন, জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার সাহস ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোল্লা মাহবুবুর রহমান, কয়রা উপজেলার বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ও স্থানীয় বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শেখ আব্দুর রশিদ, একই উপজেলার সাবেক ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান ও স্থানীয় মহিলা দলের সভাপতি নাসিমা আলম ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ও জামায়াত নেত্রি খালেদা আক্তার মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

সোমবার মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিনে প্রার্থীরা নিজেদের অনুসারিদের নিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে উপজেলাগুলোতে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে দেখা গেছে। একমাত্র বটিয়াঘাটা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতা নেই। বাকী ৮ উপজেলায় কেন্দ্রের মনোনয়ন না পেলেও আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এম. মাজহারুল ইসলাম জানান, খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলাতেই শুধুমাত্র একজন প্রার্থী উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তিনি হলেন বর্তমান চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম খান (আওয়ামী লীগ মনোনীত)। এছাড়া দাকোপ উপজেলায় মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন নেতা মুনসুর আলী খান, শেখ আবুল হোসেন (আওয়ামী লীগ মনোনীত) এবং ওয়ার্কার্স পার্টির গৌরাঙ্গ প্রসাদ রায়। ডুমুরিয়া উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মোঃ মোস্তফা সরোয়ার (আওয়ামী লীগ মনোনীত), মোল্লা মাহবুবুর রহমান, শাহনেওয়াজ হোসেন জোয়াদ্দার ও সেলিম আকতার স্বপন ওয়ার্কার্স পার্টি। ফুলতলা উপজেলায় মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান শেখ আকরাম হোসেন (আওয়ামী লীগ মনোনীত), শেখ আবিদ হোসেন, হাসনাত রিজভী মার্শাল ও শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন। পাইকগাছা উপজেলায় গাজী মোহাম্মদ আলী (আওয়ামীলীগ মনোনীত), সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রশিদুজ্জামান মোড়ল, শেখ মনিরুল ইসলাম ও শেখ আবুল কালাম। কয়রা উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন জিএম মহসিন রেজা (আওয়ামীলীগ মনোনীত), এসএম শফিকুল ইসলাম ও আব্দুল্লাহ আল মামুন। রূপসা উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা (আওয়ামীলীগ মনোনীত), সাবেক চেয়ারম্যান শেখ আলী আকবর, ওলিয়ার রহমান মাষ্টার, জাতীয় পার্টির ফিরোজ মামুন, ও শওকত আলী। তেরখাদা উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান শেখ সরফুদ্দিন বিশ্বাস (আওয়ামীলীগ মনোনীত), জেলা আওয়ামীলীগের নেতা এডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান কালু, শেখ শহিদুল ইসলাম, বাদশা মল্লিক। দিঘলিয়া উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান খান নজরুল ইসলাম (আওয়ামীলীগ মনোনীত), আওয়ামীলীগ নেতা শেখ মারুফুল ইসলাম ও মল্লিক মহিউদ্দিন।

খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশীন বলেন, ভোটের অধিকার সবারই রয়েছে। যে কেউ প্রতিদ্বন্দিতা করতে পারেন। আমরা চাই সুষ্ঠভাবে আনন্দমুখর পরিবেশে নির্বাচন সম্পন্ন হোক।

এদিকে, জেলার নয়টি উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৫৮ জন ও ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ৩৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। আগামী ৬ মার্চ মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাই হবে, ১৩ মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ও একই দিন প্রতিক বরাদ্দ দেওয়া হবে। ৩১ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top