রাগ কমানোর ৫ উপায়

rag-1-20220302150930.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : খেয়াল করে দেখবেন, আপনার রাগের কারণে অন্যরা যতটা না বেশি কষ্ট পায়, তার চেয়ে অনেক বেশি কষ্ট পান আপনি। পুরো বিষয়টি বুঝতে পারলেও রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখাটা কষ্টকর হয়ে যায়। হঠাৎ রেগে যাওয়ার অভ্যাস আছে যাদের, তারা রেগে গেলে কী বলেন বা কী করেন, সেটি নিজেরাও বুঝতে পারে না। এরপর রাগ কমে গেলে নিজেই আবার মনে মনে কষ্ট পেতে হয়। কেউ কেউ নিজেকেই শাস্তি দিয়ে থাকে।

মন সব সময় আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকে না। তবে আপনি যদি একবার মনের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেন, তবে এরপর পথচলা হবে সহজ। তখন আর আপনার অযথা রেগে যাওয়ার ভয় থাকবে না। নিজের কাজে মনোনিবেশ করতে পারবেন পুরোটাই। আপনারও যদি যখন-তখন রেগে যাওয়ার স্বভাব থাকে তবে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করতে হবে। জেনে নিন রাগ ৫ কমানোর উপায়-

সরাসরি কথা বলুন

যদি কারও কোনো কথায় বা অন্য কোনো কারণে রেগে যান তবে তার সঙ্গে সরাসরি কথা বলুন। রাগ পুষে রাখবেন না বা তার পেছনে বহিঃপ্রকাশ করবেন না। রেগে যাওয়া মানেই যে ভাঙচুর, চিৎকার-চেচামেচি করতে হবে তা কিন্তু নয়। শান্তভাবে কথা বলেও রাগের প্রকাশ করা যায়।

আরও পড়ুন : বিএনপি নেতা রিজভীসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

এক্সারসাইজ করুন

আপনার রাগ কমিয়ে ফেলার অন্যতম উপায় হতে পারে এক্সারসাইজ করা। অনেকের ক্ষেত্রে দেখবেন, রাগ হলে হাঁটতে বের হয়ে যায়। কিছুক্ষণ হেঁটে আসলে রাগ কমে যাবে। রেগে গেলে আমাদের মস্তিকে অনেক হরমোন একসঙ্গে রিলিজ করতে শুরু করে, এসময় কিছুটা ঘাম ঝরাতে পারলে আপনারই সুবিধা। তাই রেগে গেলে এক্সারসাইজ করুন। এতে রাগ নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

স্থির থাকুন

রেগে গেছেন মানেই যা খুশি বলে দেবেন না। রাগ প্রকাশের অনেক ভদ্র উপায়ও আছে। তাই রেগে গেলেও শান্ত এবং স্থির থাকার চেষ্টা করুন। এই স্বভাব আপনাকে আরও বেশি বিচক্ষণ ও পরিপক্ক করবে। রাগের সময় কষ্ট হলেও কয়েক মিনিট স্থির থাকুন। দেখবেন, রাগ কমতে শুরু করেছে, মন শান্ত হচ্ছে।

একা থাকুন

কারও কোনো আচরণ খারাপ লাগলে তার কাছাকাছি থাকবেন না। সেখান থেকে বেরিয়ে অন্য কোথাও যান। কিছুক্ষণ একা থাকুন। যে পরিস্থিতি সমস্যা আরও বাড়াতে পারে, সেদিকে যাবেন না। বরং সেখান থেকে সরে গেলে যদি সবকিছু নিয়ন্ত্রণে আসে, তবে তাই করুন। একা থাকার সময়ে পুরো বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করুন। সব দিক বিবেচনা করলে দেখবেন, আপনার রাগ নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে।

রাগ পুষে রাখবেন না

অনেকে আছেন যারা রাগ পুষে রাখে, মুখ ফুটে কিছুই বলে না। এরপর এক সময় সেই রাগ ফুলে-ফেঁপে বিশাল আকার ধারণ করে। তখন চাইলেও তা লুকিয়ে রাখা যায় না। তাই কারও ওপর রাগ হলে তা প্রকাশ করুন। তাকে বলুন কেন আপনি রাগ করেছেন। কিন্তু নিজের ভেতরে চেপে রাখবেন না। এই স্বভাব ভালো কিছু এনে দেবে না।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top