অভয়নগরের কালাম মোল্লা হত্যা মামলায় সৎ ভাইসহ ৩জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

f88c3_de9fd88e0c_long.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট, Prabartan | আপডেট: ১৬:৩৫, ২৮-০২-১৯

যশোর জেলার অভয়নগর থানার পুড়াখালি গ্রামে পৈত্রিক সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে বিরোধের জেরে ভাই কালাম মোল্লাকে হত্যার দায়ে সৎভাই ও তার ছেলেসহ ৩জনের প্রত্যেককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ-, ২০হাজার টাকা করে অর্থদ-, অনাদায়ে আরো এক বছর করে কারাদন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে খুলনার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এম এ রব হাওলাদার এ রায় ঘোষণা করেছেন।

যাবজ্জীবন দ-প্রাপ্ত আসামিরা হলেন যশোর জেলার অভয়নগর থানার পুড়াখালি গ্রামের মো. মালেক মোল্লার ছেলে মো. শাহাজাহান মোল্লা (৫০), শাহাজাহান মোল্লার ছেলে মো. ইব্রাহিম মোল্লা (২০) ও মৃত. তোজাম সরকারের ছেলে মো. হাবিবার সরকার (৫০)। এ মামলার অপর ৪আসামি হাবিবার সরকারের স্ত্রী সাহানা বেগম (৪০), মৃত. তোজাম সরকারের ছেলে মো. নিজাম সরকার (৪০), নিজাম সরকারের স্ত্রী হারিছন বেগম (৩৫) ও নড়াইল জেলা সদরের মৃত. মোহাম্মদ মোল্লার ছেলে মিকাইল মোল্লা (৫৫) কে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। রায় ঘোষণাকালে সকল আসামি আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।
আদালতের উচ্চমান বেঞ্চ সহকারী ফকির মো. জাহিদুল ইসলাম নথীর বরাত দিয়ে জানান, ২০১৭ সালের ১৪মে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে যশোর জেলার অভয়নগর থানার পুড়াখালি গ্রামে পৈত্রিক সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে বিরোধের জেরে সৎভাই কালাম মোল্লাকে গালাগালি করতে থাকে আসামিরা। কালাম এর প্রতিবাদ করলে তাকে ধালালো দা দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে আসামিরা। তার ডাকচিৎকারে স্ত্রী রাজিয়া বেগম এগিয়ে আসলে তাকেও মারপিট করা হয়। মারাত্মক আহত অবস্থায় কালামকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার কালামকে মৃত. ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহত কালামের স্ত্রী মোছা. রাজিয়া বেগম বাদী হয়ে ৮জনের নাম উল্লেখসহ আরো ৫/৭জনকে অজ্ঞাত আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন যার নং- ১০। পরের বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো.আনিচুর রহমান এজাহারভুক্ত আসামি শাহাজাহান মোল্লার ছেলে মো. শামীম মোল্লা (১৮), নিজাম সরকারের ছেলে মো. সোয়ান সরকার (১৮) ও হাবিবার সরকারের ছেলে মো. রোমান সরকার (১৮) কে কিশোর আদালতে পাঠিয়ে দিয়ে এবং হাবিবার সরকারের স্ত্রী সাহানা বেগম (৪০) ও নিজাম সরকারের স্ত্রী হারিছন বেগম (৩৫) কে সংযুক্ত করে ৭জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি এ্যাড. এনামুল হক ও এপিপি এ্যাড. শাকেরিন সুলতানা।

 

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top