বিশাল ব্যবধানে জয় পেলেন আতিক, ভোট পড়েছে ৩১.০৫ শতাংশ

atikul-bg20190301012754.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট, Prabartan | আপডেট: ০২:০১, ২৯-০২-১৯

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদের উপ-নির্বাচনে বিশাল ব্যবধানে জয় পেয়েছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম ফলাফল ঘোষণার সময় বৃহস্পতিবার (২৮ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাতে তাকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন।

নৌকা প্রতীক নিয়ে আতিকুল পেয়েছেন ৮লাখ ৩৯ হাজার ৩০২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জাতীয় পার্টির শাফিন আহমেদ লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪২৯ ভোট।

আতিকুল ইসলাম দ্বিতীয় কোনো ব্যবসায়ী নেতা, যিনি ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে নির্বাচিত হলেন।

সাবেক ব্যবসায়ী নেতা আনিসুল হক মেয়র পদে থাকাবস্তায় মৃত্যুবরণ করলে উপ-নির্বাচন করল নির্বাচন কমিশন।

আনিসুল হক নির্বাচিত হয়েছিলেন ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল। শপথ গ্রহণ করেন একই বছর ৬ মে। ১৪ মে তিনি প্রথম সভা করায় উত্তর সিটির মেয়াদ পূর্ণ হবে ২০২০ সালের ১৩ মে। যার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে অর্থ্যাৎ চলতি বছর নভেম্বরেই উত্তর সিটি সাধারণ নির্বাচনের সময় গণনা শুরু হবে।

সেই হিসেবে মেয়র পদে নির্বাচিত আতিকুল ইসলামের মেয়াদ হবে সাড়ে ১৪ মাসের মতো।

নির্বাচনে অন্য প্রার্থীদের মধ্যে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান আম প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৮ হাজার ৬৯৫ ভোট , প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির শাহীন খান বাঘ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৮ হাজার ৫৬০ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আব্দুর রহিম টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৪০ ভোট।

২৮ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণের পর ফলাফল ঘোষণা শুরু হয় সন্ধ্যা ৬টার দিকে।

মেয়র পদের উপ-নির্বাচনে ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৫৯৯ জন ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পেয়েছিলেন। এদের মধ্যে ভোট পড়েছে ৯ লাখ ৪২ হাজার ৫৩৯ ভোট। প্রদত্ত ভোটের হার ৩১ দশমিক ০৫ শতাংশ।

নির্বাচনে বাতিল হয়েছে ১৯ হাজার ৫১৩ ভোট, যা তিন প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোটের চেয়ে বেশি।

উত্তর সিটির মেয়র পদ ছাড়াও ১৮টি নতুন ওয়ার্ডের সাধারণ নির্বাচন, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নতুন ১৮টি ওয়ার্ডের সাধারণ নির্বাচনও সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top