ভারতের কোনো ছবি মুক্তি পাবে না পাকিস্তানে, ভারতীয় বায়ুসেনার প্রত্যাঘাতের পর জানাল দিশেহারা পাক সরকার

WhatsApp-Image-2019-02-17-at-12.35.17-AM.jpeg

ডেস্ক রিপোর্ট, Prabartan | আপডেট: ০১:০৫, ২৭-০২-১৯

 

মঙ্গলবার ভারতীয় বায়ুসেনা পাক অধিকৃত কাশ্মীর ও পাকিস্তানের বালাকোটে ঢুকে জঙ্গি শিবির গুঁড়িয়ে দিয়ে পুলওয়ামা হামলার প্রতিশোধ নিয়েছে।এই ঘটনার পর  ভারতের কোনও সিনেমা সেদেশে মুক্তি পাবে না বলে জানাল পাকিস্তান।

পাকিস্তানের তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী চৌধুরী ফাওয়াদ হুসেন মঙ্গলবার বলেন, পাক সিনেমা প্রদর্শকরা ভারতীয় সিনেমা বয়কট করবেন। শুধু সিনেমাই নয়, ভারতে তৈরী বিজ্ঞাপন সম্প্রচারের নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পাকিস্তান ইলেকট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি (পিইএমআরএ)-কে নির্দেশ দিয়েছেন ফাওয়াদ হুসেন।

ভারতীয় সিনেমা ও বিজ্ঞাপন বয়কটের কথা টুইটারে জানান চৌধুরী ফওয়াদ হুসেন।

১৪ ফেব্রুয়ারির পুলওয়ামা হামলার দায় স্বীকার করেছিল পাকিস্তানের জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদ। এর ঠিক ১২ দিন পর প্রত্যাঘাত করল ভারত। পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখওয়া প্রদেশের কুনহার নদীর তীরে বালাকোটে ছিল জইশ-ই-মহম্মদের সবচেয়ে বড় জঙ্গি শিবির ।  সূত্রের খবর, বালাকোটে  জইশের এই শিবিরে কমপক্ষে ৩২৫ জঙ্গি ও ২৫-২৭ জন প্রশিক্ষক ছিল। জইশ ও অন্যান্য জঙ্গি গোষ্ঠীগুলির গুরুত্বপূর্ণ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এই বালাকোট শিবির।

মঙ্গলবার ভোররাতে  সেই বালাকোট শিবিরে ভারতীয় বায়ুসেনার আক্রমণে প্রায় সাড়ে তিনশ জঙ্গি মারা যায়। মঙ্গলবার ভোররাতে মিরাজ যুদ্ধবিমানের সাহায্যে  বালাকোটের ঘাঁটিতে বোমাবর্ষণ করে ভারতীয় বায়ুসেনা। বালাকোট ছাড়াও মুজফ্ফরবাদ ও চাকোটিতেও আক্রমণ চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা।

দিল্লি সূত্রের খবর, এই হামলার দ্বারা বহু সংখ্যক জঙ্গিকে নিকেশ করা সম্ভব হয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগেই সন্ত্রাসবাদী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে “টোটাল ধামাল”, “লুকা-ছুপি”, “অর্জুন পাটিয়ালা”, “নোটবুক” এবং “কবির সিং”-ছবিগুলির নির্মাতারা সাফ জানিয়েছিলেন যে, তাঁদের সিনেমাগুলি পাকিস্তানে দেখানো হবে না।

 

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top