খুলনা হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে মত বিনিময় সভা

53139456_584346528748664_6015919172058349568_n.jpg

বিজ্ঞপ্তি, Prabartan | আপডেট: ২১:০৯, ২৫-০২-১৯

 

বন্ধু সোশ্যাল ওয়েল ফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে লিঙ্গ বৈচিত্রময় ও হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে বিভাগীয় মিডিয়া থিংক ট্যাংক ফোরাম গঠনের লক্ষ্যে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে খুলনায় মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি)  সকালে নগরীর সোনাডাঙ্গাস্থ ছিন্নমূল মানব কল্যাণ সোসাইটির সম্মেলন কক্ষে সভার আয়োজন কার হয়।

সভায় লিঙ্গ বৈচিত্রময় ও হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের মাধ্যমে তাদের সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনতে ইতিবাচক নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সোসাইটির প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ শাফাত রহমান। অংশ নেন বন্ধুর ডেপুটি ম্যানেজার ইকবাল হোসেন।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে ১০ সদস্য বিশিষ্ট বিভাগীয় মিডিয়া থিংক ট্যাংক ফোরাম গঠন করা হয়। দৈনিক প্রবাহ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার খলিলুর রহমান সুমনকে আহবায়ক কালেরকন্ঠ পত্রিকার খুলনার স্টাফ রিপোর্টার কৌশিক দে বাপ্পী ও বাংলানিউজ২৪.কম’র খুলনা ব্যুরো এডিটর প্রতিনিধি মাহবুবুর রহমান মুন্নাকে যুগ্ম আহবায়ক করে এ কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন ইত্তেফাক পত্রিকার খুলনা প্রতিনিধি এনামুল হক, একুশে টিভি খুলনার প্রতিনিধি মহেন্দ্রনাথ সেন, বাংলা ট্রিবিউনের খুলনা প্রতিনিধি হেদায়েৎ হোসেন মোল্যা, দৈনিক পূর্বাঞ্চল পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার এইচ এম আলাউদ্দীন, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির খুলনা প্রতিনিধি মোঃ শামীমুজ্জামান, পাঠকের পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার নিপা মোনালিসা ও প্রবর্তনের স্টাফ রিপোর্টার সাইফুল ইসলাম।

সভায় উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশের সরকার হিজড়া জনগোষ্ঠীর স্বীকৃতি দেয় ২০১৩ সালে। এতে করে তারা ভোটারাধিকার সহ নানা অধিকার ফেরৎ পেয়েছে। ২০১০ সালে পাকিস্তান সরকার, ২০০৭ সালে নেপাল সরকার, ২০০৯ সালে ভারত সরকার ও ২০১৫ সালে শ্রীলংকা সরকার হিজড়াদের স্বীকৃতি দেয়। এ জনগোষ্ঠীর মান উন্নয়নে এসব রাস্ট্রগুলো কাজ করছে। বাংলাদেশেও একইভাবে কাজ চলছে। হিজড়াদের সমাজে বোঝা নয় শক্তিতে রূপান্তর করতে বন্ধু সোশ্যাল ওয়েল ফেয়ার সোসাইটি ১৯৯৬ সাল থেকে কাজ করে আসছে।

 

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top