বিএনপি নেতা হত্যার পাঁচদিন পরে থানায় মামলা

52033967_381759099270175_5847455745661992960_n.jpg

বিএনপি নেতা হত্যার পাঁচদিন পরে থানায় মামলা

রামপাল প্রতিনিধি, Prabartan | আপডেট: ১৯-০২-১৯

 

বাগেরহাটের রামপাল উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক চেয়ারম্যান খাজা মঈনুদ্দিন আখতার নিহতের পাঁচ দিন পরে থানায় মামলা হয়েছে। নিহতের শশুর সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব সাহেব আলী আকুঞ্জী বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ১০-১২জনকে আসামী করে মামলাটি করেন। সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে মামলা হলেও কৌশলগত কারণে পুলিশ মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সাংবাদিকদের জানায় পুলিশ।

মামলার আসামীরা হলেন, উপজেলার কদমদী গ্রামের আঃ বারিক শেখের পুত্র বর্তমানে রূপসার বাসিন্দা আজিম শেখ, কদমদী গ্রামের মৃতঃ আশরাফ শেখের পুত্র আহাদ শেখ, শ্রীকলস গ্রামের আমিন উদ্দিন ব্যাপারির পুত্র বাকি বিল্লাহ, ঝালবাড়ি গ্রামের মৃত আছির উদ্দিন কাজীর পুত্র বাবুল কাজী ও একই গ্রামের বাবরের পুত্র শিবলু আকুঞ্জী।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ লুৎফর রহমান জানান, নিহতের শশুর ৫জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছেন। আমরা আসামীদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান শুরু করেছি।

বৃহষ্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে সাতটার দিকে রামপাল উপজেলার ভরসাপুর বাজার এলাকায় উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক খাজা মঈনুদ্দিন আখতার (৫২) নিহত হন।

 

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top