পাকিস্তানিদের দুই দিনের মধ্যে রাজস্থান ছাড়ার নির্দেশ

Screenshot_2019-02-19-পাকিস্তানিদের-দুই-দিনের-মধ্যে-রাজস্থান-ছাড়ার-নির্দেশ.png

পাকিস্তানিদের দুই দিনের মধ্যে রাজস্থান ছাড়ার নির্দেশ

ডেস্ক রিপোর্ট, Prabartan | আপডেট: ১৬:০৬, ১৯-০২-১৯

 

ভারতের রাজস্থানে বসবাসকারী পাকিস্তানি নাগরিকদের দুই দিনের মধ্যে শহর ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। সোমবার এই নির্দেশ জারি করেছেন স্থানীয় জেলা প্রশাসক। খবর এনডিটিভির।

বৃহস্পতিবার কাশ্মীরের পুলওয়ামার অবন্তীপুরায় দেশটির কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ বাহিনীর (সিআরপিএফ) কনভয়ে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হামলায় ৪৪ জওয়ান নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৪০ জনেরও বেশি।

এরপরই ১৪৪ ধারা অনুযায়ী এমন নির্দেশ জারি করল রাজস্থানপ্রশাসন। প্রশাসনের এই আদেশ তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর করা হয়েছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই নির্দেশের সঙ্গে সঙ্গে বিকানের হোটেল থেকে শুরু করে লজের মালিক পাকিস্তানি নাগরিক রাখতে পারবেন না। নতুন করে কাউকে জায়গাও দিতে পারবেন না তারা। এমনকি ভারতীয় নাগরিকরা পাকিস্তানের কারো সঙ্গে সরাসরি ব্যবসায় যেতে পারবেন না। পাকিস্তানের নাগরিক এমন কাউকে চাকরি দেয়া যাবে না।

জেলা শাসকের জারি করা ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, পাকিস্তানে নথিভুক্ত এমন কোনো সিম কার্ড ব্যবহার করবেন না জেলা প্রশাসনের কোনো কর্মী। তাছাড়া নাগরিকদেরও বলা হয়েছে সেনা বাহিনীর সঙ্গে সম্পর্কিত ওই ধরনের কোন স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে ফোনে আলোচনা না করতে।

পুলওয়ামা হামলার একদিন পর শুক্রবার পাকিস্তানকে সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত দেশের তালিকা থেকে বের করে দেয় ভারত। পুলওয়ামা হামলায় পাকিস্তানের হাত রয়েছে বলে ভারত অভিযোগ করলেও তা প্রত্যাখ্যান করেছে ইসলামাবাদ।

এই হামলার জেরে পাকিস্তানকে কূটনৈতিকভাবে বিচ্ছিন্ন করতে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে কাজ শুরু করেছে নয়াদিল্লি। তবে পাকিস্তান বলছে, ভারতের এই চেষ্টা কখনই সফল হবে না।

এদিকে, পুলওয়ামার পিংলান গ্রামে সোমবার সকালের দিকে আবারো জঙ্গিদের সঙ্গে টানা দশ ঘণ্টার লড়াই হয়েছে ভারতের সেনাবাহিনীর সদস্যদের। এই সংঘর্ষে বৃহস্পতিবারের হামলার মূলহোতা ও জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদের কমান্ডার আব্দুল রশিদ গাজী ওরফে কামরান ওরফে আফগানি এবং আরো দুই জঙ্গি নিহত হয়েছে। জঙ্গিদের সঙ্গে লড়াইয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক মেজরসহ চার জওয়ান নিহত হয়েছে।

 

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top