৯/১১ জঙ্গি হামলা: কীভাবে বাঁচলেন পপস্টার মাইকেল জ্যাকসন

-জঙ্গি-হামলা-কীভাবে-বাঁচলেন-পপস্টার-মাইকেল-জ্যাকসন.jpg

৯/১১ জঙ্গি হামলা: কীভাবে বাঁচলেন পপস্টার মাইকেল জ্যাকসন

ডেস্ক রিপোর্ট, Prabartan | আপডেট: ১৯:০৩, ১৭-০২-১৯

 

জনপ্রিয় পপ-তারকা মাইকেল জ্যাকসনের মৃত্যুতে সারা পৃথিবীতে আলোড়ন পরে যায়। তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হবার পর তা সবজায়গায় খুবই দ্রত ছড়িয়ে পড়ে। তার সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য পৃথিবীর সকল অঞ্চল থেকে তার ভক্ত ও সাধারণ মানুষ গুগল এ সার্চ করা শুরু করে।

২০০৯ সালের ২৫শে জুন মৃত্যুবরণ করেন মাইকেল জ্যাকসন। কিন্তু তার আগে জীবনের আটটি বছর তিনি ভাগ্যের জোরে বেঁচে গিয়েছিলেন।কারণ ২০০১ সালের ৯/১১ জঙ্গি হামলায় এই পপ-তারকার মৃত্যু হতে পারত। প্রয়াত এই পপস্টারের ভাই জেরমাইন জ্যকসনের লেখা মাইকেলের জীবনী ‘ইউ আর নট অ্যালোন: মাইকেল: থ্রু অ্যা ব্রাদার্স আইজ’-এ উঠে এসেছে সেই কাহিনী।

২০০১ সালে ৯ সেপ্টেম্বরের ওই হামলায় নিহত হন ৩০০০ মানুষ। দুটি বিমান এসে সোজা ধাক্কা মারে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রের দুটি টাওয়ারে। আগুন ধরে যায় দুটি টাওয়ারেই। চোখের সামনে ভেঙে পড়ে বিশ্ববাণিজ্য কেন্দ্র। ওই ৩০০০ হাজার হতভাগ্য মানুষের মধ্যে থাকতে পারতেন মাইকেল জ্যাকসনও।

কীভাবে বাঁচলেন পপস্টার? জেরমাইন জ্যকসন লিখেছেন, হামলার দিন বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রে জ্যাকসনের একটি বৈঠক ছিল। কেউ হয়তো তা জানেন না। কিন্তু তার আগের রাতে ঘুমতে যেতে দেরী করে ফেলেন জ্যাকসন। রাতে মা ক্যথেরাইনের সঙ্গে অনেকক্ষণ কথা বলেছিলেন তিনি। ফলে বিছানায় যেতে অনেক রাত হয়ে যায় তার। ফলে সকালে ঠিক সময়ে ঘুম থেকে উঠতে পারেননি। স্বাভাবিকভাবেই বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রের মিটিং যেতেই পারেননি। আর এটাই তাঁকে বাঁচিয়ে দেয়।

হামলার খবর পাওয়ার পরই জ্যকসন মাকে ফোন করেন, ‘মা আমি ভালো আছি। গত রাতে তোমার সঙ্গে এতক্ষণ কথা বলেছি যে সকালে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রের বৈঠকে যেতে পারিনি। ওই ঘটনার ৮ বছর পর ৫০ বছর বয়সে মারা যান মাইকেল।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top