খুলনায় বিশ্ব বেতার দিবস পালিত

khulna-batar20200213154106.jpg

অনুষ্ঠানমালায় বৈচিত্র্য আনতে পারলে বেতার আরও জনপ্রিয় হবে। শ্রোতার চাহিদা আর সময়কে বিবেচনায় নিয়ে বেতারের অনুষ্ঠান তৈরি ও প্রচার করা গেলে শ্রোতারা উপকৃত হবে এবং দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে।

খুলনা বেতার প্রাঙ্গণে বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিশ্ব বেতার দিবসের আলোচনা সভায় এসব অভিমত ব্যক্ত করেন বক্তারা। বিশ্ব বেতার দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘বেতার ও বৈচিত্র্য’।

অতিথিরা বলেন, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের উত্তরসূরী হলো বেতার। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে বেতারের অবদান অনস্বীকার্য। সরকার বেতারকে আরও জনপ্রিয় ও তৃণমূল মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য কমিউনিটি রেডিও চালু করেছে। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, তথ্যপ্রযুক্তির এ যুগে ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো স্থান থেকে www.betar.gov.bd ওয়েবসাইটে এবং বেতার অ্যাপসের মাধ্যমেও সব অনুষ্ঠান শোনা যাবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মো. হাবিবুল হক খান। বাংলাদেশ বেতার খুলনার আঞ্চলিক পরিচালক মো. বশির উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল, রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ এবং সুন্দরবন একাডেমি নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। স্বাগত জানান উপ-বার্তা নিয়ন্ত্রক মো. নূরুল ইসলাম।

এর আগে দিবসটি উপলক্ষে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: নিরাপত্তা সতর্কতা!!!