বাংলাদেশ ও সৌদির মধ্যে ৩১ বিষয়ে সমঝোতা

bangl3-2002130941.jpg

বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। এ সমঝোতা স্মারকে দুই দেশের স্বার্থ রক্ষায় ৩১টি বিষয়ে সহযোগিতা করতে রাজি হয়েছে বাংলাদেশ-সৌদিআরব।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এ চুক্তি সই হয়।

এতে বাংলাদেশের পক্ষে সই করেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব মনোয়ার আহমেদ এবং সৌদি প্রতিনিধি দলের পক্ষে সই করেন সেদেশের শ্রম মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মাহির আবদুল রহমান ঘাসিম।

পরে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে চুক্তির বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়।

যৌথ কমিশনের বৈঠকে উভয় দেশ বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে রাজি হয়েছে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সৌদি আরবকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি এবং বিভিন্ন শাখায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের আরো বেশি বৃত্তি দেয়ার অনুরোধ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে মনোয়ার আহমেদ জানান, এরই মধ্যে বাংলাদেশে ১৮০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের জন্য সৌদির অ্যাকোয়া পাওয়ারের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, শিগগিরই সৌদি আরবের বেসরকারি বিনিয়োগকারিরা বাংলাদেশে আসবেন এবং এমওইউ সই করবেন। তিনি জানান, সৌদি আরবের সঙ্গে রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কথা হয়েছে। তবে এর সঙ্গে অনেকগুলো মন্ত্রণালয় ও সংস্থা যুক্ত থাকায় পরে এ বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলাপ-আলোচনা করা হবে।

মনোয়ার আহমেদ বলেন, যৌথ কমিশন বৈঠক দুই বছর পরপর হয়। কিন্তু টেকনিক্যাল কমিটির বৈঠক চলে সব সময়ই। তাই বৈঠকের আলোচনা ও সিদ্ধান্তগুলো পরবর্তীতে বাস্তবায়ন হয় টেকনিক্যাল কমিটির মধ্যে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে।

মাহির আবদুল রহমান ঘাসিম বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যু একটা স্পর্শকাতর বিষয়। এরইমধ্যেই সৌদি আরবে কিছু রোহিঙ্গা আটক রয়েছে। অনেকে জেলও খাটছে। তাদের সাজা শেষে ফেরত পাঠানো হবে।

দুইদিনের বাংলাদেশ সৌদিআরব যৌথ কমিশনের বৈঠকের আয়োজন করে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি)।

বৈঠকে উভয় দেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, বিভাগ বা এজেন্সিগুলোর উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা বিভিন্ন অধিবেশনে অংশ নেন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।