তৃতীয় মেয়াদে স্পিকার নির্বাচিত শিরীন শারমিন

shirin-sharmin-80328-1548842610.jpg

ড. শিরীন শারমিন

ডেস্ক রিপোর্ট, Prabartan | আপডেট: ৯:০৯ পিএম, ৩০-০১-১৯

 

জাতীয় সংসদ: তৃতীয় মেয়াদে স্পিকার নির্বাচিত হলেন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। বুধবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে এমপিদের কণ্ঠভোটে স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি। পরে সংসদ ভবনে অবস্থানরত রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে শপথ নেন তিনি।

অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অধিবেশনে স্পিকার পদে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর নাম প্রস্তাব করেন নোয়াখালী-৫ আসনের এমপি ওবায়দুল কাদের। পরে সেই প্রস্তাবে সমর্থন করেন মাদারীপুর-১ আসনের এমপি নূর-ই-আলম চৌধুরী। প্রস্তাবটি কণ্ঠভোটে দেন সংসদে স্পিকারের আসনে থাকা অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া।

আরো পড়ুন>>: গণতান্ত্রিক ধারা বজায় রাখতে ঐকমত্য গড়ে তুলুন

দশম সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিনের কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল না। একটি মাত্র নাম প্রস্তাব করার পরও রীতি অনুযায়ী নামটি ভোটে দেন ডেপুটি স্পিকার। কণ্ঠভোটে পাস হওয়ার পর ১৫ মিনিটের বিরতিতে যায় সংসদ।

নবম সংসদের শেষ দিকে জিল্লুর রহমানের মৃত্যুর পর আবদুল হামিদ রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হলে শূন্য হয় স্পিকারের আসন, সেই স্থানে আসেন সংসদ সদস্য শিরীন শারমিন। সেবার প্রথমবারের মতো আইনসভায় এসে চার বছরের অভিজ্ঞতাকে পুঁজি করেই সংসদ প্রধানের পদে বসেন শিরীন শারমিন। আর এই পদে তিনিই ছিলেন প্রথম নারী। নবম সংসদে সংরক্ষিত আসনে নির্বাচিত হয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছিলেন তিনি।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে পৈত্রিক এলাকা নোয়াখালীর চাটখিল আসনে সরাসরি অংশ নিতে চাইলেও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি তিনি। এরপর সংরক্ষিত মহিলা আসন থেকে সংসদে যেতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান তিনি। ওই সময় শেখ হাসিনা রংপুর-৬ (পীরগঞ্জ) আসনটি ছেড়ে দিয়ে সেখানে উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী করেন শিরীন শারমিনকে। উপনির্বাচনে আর কেউ প্রার্থী না হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন তিনি। আর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৬ আসন থেকেই নির্বাচিত হন শিরীন শারমিন।

 

বাংলাদেশ সময়: ২১০৯, ৩০ জানুয়ারি ২০১৯

ডেস্ক/এএস

 

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top