গর্ভজাত সন্তান বিক্রির চুক্তি!

820180601032937-80458-1548865455.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট, Prabartan | প্রকাশিত: ২২৫৬, ৩০-০১-১৯

 

ভূমিষ্ঠ হওয়ার আগেই সন্তানকে বিক্রি করতে চুক্তির খবর পাওয়া গেছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে বাচ্চা নিতে আসলে চুক্তি করা ওই নারীকে আটক করেছে পুলিশ। আটকের নাম সোনিয়া (২৮)। তাকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

নবজাতকের বয়স দুই দিন। নাম মুসা।

বুধবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটে বলে ডেইলি বাংলাদেশকে নিশ্চিত করেছে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া।

নবজাতকের মা জোসনা বেগম সাংবাদিকদের জানান, গতকাল ঢামেক হাসপাতালে সিজারের মাধ্যমে একটি ছেলে সন্তান জন্ম হয় তার। তিনি গাইনি বিভাগে ভর্তি রয়েছে।

আরো পড়ুন>>: মহাকাশ ভ্রমণের ইতিকথা

তিনি জানান, কমলাপুর স্টেশনে হোটেলে হোটেলে পানি দেয়ার কাজ করতো জোসনা। সেখানে সোনিয়ার সঙ্গে পরিচয় হয় তার। তখন জোসনা ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল।

সে সময় সোনিয়া অন্তঃসত্ত্বা নবজাতককে কেনার জন্য ৫০ হাজার টাকা কথা বলেন। পরে সোনিয়া তাকে শারীরিক চিকিৎসার জন্য ৩ হাজার টাকা দিয়েছিল। মাঝে মাঝে মধ্যে যোগাযোগ রাখতেন।

নবজাতক ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর জোসনা তাকে জানান, বাচ্চা দেবে না, টাকা ফেরত দেবে।

আটক সোনিয়া সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, পুরান ঢাকার রায়সাহেব বাজার এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকেন তিনি। জোসনা এক সময় তার বাসায় কাজ করতো। তার সমস্যার (অন্তঃসত্ত্বা) কারণে তাকে চিকিৎসার জন্য ৩ হাজার টাকা দিয়েছি। আজ জোসনা তাকে ফোন করে আসতে বলে, তাই সকাল এসেছিল সোনিয়া। সারাদিন তার পাশেই ছিল। সন্ধ্যায় ঢামেকে হাসপাতালের গাইনি বিভাগের ওর্য়াডে জোসনার ২য় স্বামী টুকু মিয়ার অভিযোগে আনসার সদস্যরা নারীকে আটক করে। পরে শাহবাগ পুলিশে সোপর্দ করেন।

টংঙ্গীর রেল স্টেশন এলাকায় ২য় স্বামী টুকুকে নিয়ে থাকেন জোসনা। জোসনার প্রথম পক্ষের এক ছেলে আছে। সে এতিমখানা রয়েছে।

 

বাংলাদেশ সময়: ২২৫৬, ৩০ জানুয়ারি ২০১৯

ডেস্ক/এএস

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top