নিখোঁজের ৩ দিন পর মিলল ইজিবাইক চালকের লাশ

image-119903-1580032001.jpg

নিখোঁজের তিন দিন পর যশোরের চৌগাছা উপজেলায় আব্দুস শকুর রানা (২০) নামে এক ইজিবাইক চালকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার (২৬ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার কচুবিলা মাঠের একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় রানার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত রানা চৌগাছা উপজেলার আড়সিংড়ি পুকুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

তবে পুলিশ জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত নিহত রানার ইজিবাইকটি পাওয়া যায়নি।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) বিকালে চৌগাছা পৌর শহর থেকে যাত্রী সেজে রানাকে কে বা কারা ভাড়ায় নিয়ে যায়। এরপর থেকে তার ফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়। একই রাতে যশোর পৌর শহরের নাইটগার্ড পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি রানার ফুফাতো ভাইয়ের মুঠোফোনে কল করে বলে ‘তোমাদের রানা শহরে ভবঘুরের মতো ঘুরে বেড়াচ্ছে। আমরা ধরে রেখেছি।’

একথা জানার পর রানার ফুফাতো ভাই তাদের বাড়িতে বিষয়টি অবগত করে। পাশাপাশি মুঠোফোনে ওই নাইটগার্ডকে অনুরোধ করেন যেন তিনি রানাকে ধরে রাখেন। এরপর নাইডগার্ড পরিচয় দেওয়া ওই ব্যক্তি বলেন, ‘রানাকে আমরা ছেড়ে দিয়েছি। সে তো চলে গেছে।’ এরপর থেকেই রানার আর কোনো সন্ধান মেলেনি।

সবশেষে রবিবার (২৬ জানুয়ারি) সকালে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই মাঠের মধ্যে কলা ক্ষেতের ভেতরের একটি উঁচু গাছের ডালে রানার ঝুলন্ত লাশের সন্ধান মেলে। এ সময় মাটি থেকে ঝুলন্ত রানার পায়ের দূরত্ব ছিল প্রায় ১০ ফুট।

রানার নানি মঞ্জুয়ারা বলেন, ‘৬ মাস আগে একবার রানার ইজিবাইক ছিনতাই হয়ে যায়। কিছু দিন আগে তাকে আবারও একটি ইজিবাইক কিনে দেয় তার পরিবার। এরপর কিছুদিন আগে রানার ইজিবাইকে ফেনসিডিল পেয়ে পুলিশ তাকে আটক করে। পরে ফেনসিডিলের মালিকের নাম পুলিশকে জানালে তারা রানাকে ইজিবাইকসহ ছেড়ে দেয়।’

তবে, স্থানীয়রা দাবি করছেন- ওই ফেনসিডিল মালিক রানাকে অপহরণ করে হত্যা করে থাকতে পারে।

এ ব্যাপারে চৌগাছা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই বিপ্লব রায় জানান, ময়না তদন্তের পর বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top