আমার টাকায় মরোক্কোতে বাড়ি কিনেছে নোরা: সুকেশ

nora-sukesh-20230124131100.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট :বলিউড তারকা নোরা ফতেহিকে নিয়ে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ সামনে আনছেন সুকেশ চন্দ্রশেখর। দিন কয়েক আগেই সুকেশ জানান, বলিউড অভিনেত্রী নোরা ফতেহি সব সময় জ্যাকলিন ফার্নান্দেজকে ঈর্ষা করতেন। এবার সুকেশের দাবি, তার কাছ থেকে মোটা টাকা নিতেন নোরা। সেই টাকা দিয়ে মরোক্কোতে বাড়িও কিনেছেন।

যদিও নোরার গলায় অবশ্য অন্য সুর। ২১৫ কোটি আর্থিক তছরূপের মামলায় অভিযুক্ত সুকেশই নাকি নোরাকে কথা দিয়েছিলেন বিলাসবহুল জীবনযাপনের। শর্ত, সুকেশের প্রেমিকা হয়ে থাকতে হবে নোরাকে।সম্প্রতি দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে কনম্যান সুকেশ চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে সরব হন নোরা ফাতেহি।

আরও পড়ুন : আইনজীবীকে পেটালেন কাউন্সিলর

নিজের গোপন জবানবন্দিতে অভিনেত্রী জানান, ‘বান্ধবী হওয়ার পরিবর্তে বিলাসবহুল গাড়ি-বাড়ির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল সুকেশ।’আদালতে জবানবন্দিতে ‘দিলবার’ কন্যার দাবি, পিঙ্কি ইরানির মাধ্যমে তার যোগাযোগ হয় সুকেশের সঙ্গে। তিনি চিনতেন না সুকেশকে, তার সঙ্গে কখনও সামনাসামনি আলাপ বা ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল না। সুকেশের পাল্টা দাবি, এখন নোরা গল্প বুনছেন। এ সব অভিযোগ ভিত্তিহীন। আইন ও ইডির হাত থেকেই বাঁচতেই এত কিছু বলছেন নোরা।

প্রশ্ন ওঠে নোরার সাদা বিএমডব্লিউ গাড়ি নিয়ে। মাঝে যে গাড়িতে দেখা যাচ্ছিল তাকে। সেই গাড়ি সুকেশ কিনে দিয়েছেন বলেই জানান। নোরা অবশ্য এই দাবিকে নসাৎ করেছেন। তার প্রেক্ষিতেই ইডিকে সুকেশ তাদের কথোপকথেনর স্ক্রিনশট দেখান। পাশপাশি বলেন, ‘নোরা ও আমি দুজনে মিলে গাড়িটা পছন্দ করি। পুরানো গাড়িটা পছন্দ ছিল না ওঁর। তাই কিনে দিই। আমি যদিও রেঞ্জ রোভার দিতে চেয়েছিলাম নোরাকে। সেটা না থাকায় তখন বিএমডব্লিউ কেনা হয়।’

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top