হার্দিক-রাহুলকে বিসিসিআইয়ের খেলার সুপারিশ

.jpg

হার্দিক-রাহুলকে বিসিসিআইয়ের খেলার সুপারিশ

স্পোর্টস ডেস্ক, prabartan.com | আপডেট: ২০১৯-০১-২০ ০১:২৭:৩৯ পিএম

 

নারী নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় বাজে ভাবেই ফেঁসে গেছেন ভারতীয় তারকা ক্রিকেটার হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুল। এক কথায় তাদের ক্যারিয়ারই এখন হুমকির মুখে। তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড তাদের পক্ষ হয়ে কথা বলছে।

বিসিসিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট সিকে খান্না জানিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটরসের কাছে অনুরোধ জানানো হয়েছে কোর্টের আদেশ না আসা পর্যন্ত তাদের নিষেধাজ্ঞা যেন তুলে নেওয়া হয়।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে খান্না বলেন, ‘অমীমাংসিত তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত তাদের দু’জনকেই নিউজিল্যান্ড সফরে পাঠানো হোক। তারা ভুল করেছে। তারা ইতোমধ্যে নিষিদ্ধ হয়ে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরেছে। তারা তাদের ভুলের জন্য ক্ষমাও চেয়েছে। আমরা তাদের ক্যারিয়ারকে নরকে ফেলতে পারিনা।’

নারী নিয়ে অশালীন মন্তব্যের জেরে হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুলকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করে ভারতীয় বোর্ড। শুধু তা-ই নয়, ভারত জুড়ে উঠে পড়া প্রবল বিতর্কের ঝড়ের মধ্যে দুই ক্রিকেটারকে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশেও ফিরিয়ে আনা হয়।

এর আগে করন জোহরের ‘কফি উইথ করন’ নামে ভারতের জনপ্রিয় টেলিভিশন অনুষ্ঠানে নারীদের নিয়ে অশালীন মন্তব্য করায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) তোপের মুখে পড়েন এ দুই ক্রিকেটার।

অশালীন মন্তব্যের কারণে বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়। অবশ্য এর আগেই সামাজিক যোগোযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠায় ক্ষমা চেয়েছেন পান্ডিয়া।

অনুষ্ঠানে একাধিকবার নারীদের নিয়ে মন্তব্য করেন এই দুই তরুণ ক্রিকেটার। তাই অস্ট্রেলিয়া সফরে থাকা অবস্থাতেই এই দুই ক্রিকেটারের কাছে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠায় বোর্ড।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে পান্ডিয়া ক্ষমা চেয়ে আগেই লেখেন ‘কফি উইথ করনে আমার মন্তব্যে কেউ আঘাত পেয়ে থাকলে, আমি প্রত্যেকের কাছে ক্ষমা চাইছি। সত্যি বলতে অনুষ্ঠানের সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে এমনটা হয়েছে। কোনোভাবেই কাউকে অসম্মান কিংবা আঘাত করার ইচ্ছা আমার ছিল না।’

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৭ ঘণ্টা, ২০ জানুয়ারি, ২০১৯
এএস/ডেস্ক

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top