ব্রাজিলে চীনা ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা শতকরা ৫০ ভাগ

image-214017-1610532552.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট :  চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেক উদ্ভাবিত করোনা ভ্যাকসিন ব্রাজিলে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে মাত্র ৫০.৪ শতাংশ কার্যকর বলে জানিয়েছেন দেশটির গবেষকরা। প্রকাশিত তথ্যের চেয়েও নতুন এই তথ্যে কার্যকারিতা উল্লেখযোগ্য পরিমাণ কম দেখা যাচ্ছে বলে জানান তারা।ব্রাজিলে করোনাভাইরাসের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালাচ্ছে জীবপ্রযুক্তি বিষয়ক গবেষণা প্রতিষ্ঠান বুটান্টান ইন্সটিটিউট। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, তারা দাবি করছে মৃদু সংক্রমণের ক্ষেত্রে ভ্যাকসিনটি ৭৮ শতাংশ এবং মধ্যম থেকে অতি সংক্রমণের ক্ষেত্রে এটি শতভাগ কার্যকর।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সিনোভ্যাকের ভ্যাকসিন বিভিন্ন মাত্রায় কার্যকারিতা দেখিয়েছে। তুরস্কে ভ্যাকসিনটি ৯১.২৫ শতাংশ কার্যকারিতা দেখিয়েছে, ইন্দোনেশিয়ায় দেখিয়েছে ৬৫.৩ শতাংশ।ব্রাজিলে চালানো ট্রায়ালে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীদের সান্নিধ্যে আসা সম্মুখসারির স্বাস্থ্যকর্মীদের করোনাভ্যাক টিকা দেওয়া হয়।ব্রাজিলে করোনাভ্যাক টিকার এই ট্রায়ালে ১২ হাজার ৫০০ জন স্বেচ্ছাসেবী অংশ নেন।গবেষকদের ভাষ্য, পরীক্ষায় টিকাটি ৫০ দশমিক ৪ শতাংশ কার্যকর বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

নতুন এই ফলাফল ব্রাজিলের জন্য বেশ হতাশার খবরই বয়ে আনলো। দেশটিতে চীনের ভ্যাকসিনটি ছাড়া আর মাত্র একটি ভ্যাকসিন সরকারের অনুমোদনের তালিকায় রয়েছে। করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক মৃত্যু হয়েছে ব্রাজিলে।ব্রাজিলে সিনোভ্যাকের কার্যকারিতা নিয়ে দেশটির একাধিক বিজ্ঞানী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। অনুজীববিজ্ঞানী নাটালিয়া পাস্তারনাক বলেন, ‘বিশ্বের সেরা ভ্যাকসিন নয় এটি, আদর্শ ভ্যাকসিনও নয়, আমাদের শুধু একটি ভালো ভ্যাকসিন প্রয়োজন।’

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: নিরাপত্তা সতর্কতা!!!